সাংবাদিক ইয়াকিন’র উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় মানববন্ধন

মোঃ শাহিনুর রহমান শাহিন,সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: জাতীয় দৈনিক মাতৃজগত পত্রিকার কক্সবাজার প্রতিনিধি সাংবাদিক মোঃ ইয়াকিন ও তার পরিবারের সদস্যদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতনকারী সকল সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবীতে বাংলাদেশ সাংবাদিক ক্রাইম সংগঠন সাতক্ষীরা জেলা শাখার উদ্যোগে ২০ জুন সকালে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

শনিবার সকাল ১১ টায় সাতক্ষীরা-যশোর মহাসড়কের সংগ্রাম হাসপাতাল সংলগ্ন “বাংলাদেশ সাংবাদিক ক্রাইম সংগঠন সাতক্ষীরা জেলা শাখার কার্যালয়ের সামনে নোভেল করোনা ভাইরাসের কারণে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে উক্ত প্রতিবাদী মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধনে মাতৃজগত সাতক্ষীরা ব্যুরো প্রধান এম ইদ্রীস আলির সভাপতিত্বে ও সঞ্চলনায় বক্তব্য রাখেন, সাংবাদিক ডাঃ মহিদার রহমান, শাহিনুর রহমান শাহিন, হাবিবুল্লাহ বাহার, মিজানুর রহমান।

সাংবাদিক বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন সাংবাদিকরা হলো সমাজের দর্পণ। সাংবাদিকরা দেশের আনাচে-কানাচে নিত্য ঘটে যাওয়া ঘটনাকে দেশের সবার সামনে তুলে ধরেন। সাংবাদিকদের সংবাদ এর বিষয় বস্তু হতে পারে সমাজের সকল উন্নয়ন, প্রশংসা, শাফল্য বা ঘুষ দুর্নীতিসহ নানা কর্মকাণ্ডের উপর। তবে প্রশংসা মূলক কর্মকাণ্ডের নিউজে বাহবা পেলেও দুর্নীতির চিত্র প্রকাশ করলে অপরাধীরা সাংবাদিক মহলের উপর তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠে! তখন অপরাধীদের গোমর ফাঁস হয়ে যাওয়ার কারণে নানা হুমকি ধামকি এমনকি জখম বা কোন কোন ক্ষেত্রে হত্যার ও স্বীকার হতে হচ্ছে। তবে দুঃখের বিষয় সাংবাদিকদের উপর খুন জখম হলেও তারা তার ন্যার্য বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

দক্ষিণ বঙ্গের সাংবাদিক স.ম আলাউদ্দিন, শামছুর রহমান বা মুকুল হত্যার স্বীকার হলেও তার বিচার আমরা পাইনি? সমপ্রতি কক্সবাজারের সাংবাদিক ইয়াকিন অত্রালাকার ইয়াবা ব্যাবসায়ী চোরাচালানকারী সিএনজি আমিন কর্তৃক হত্যার উদ্দেশ্য মারাত্মক জখম প্রাপ্ত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে যাচ্ছেন। আমরা দেশের সকল সাংবাদিকগণ বর্জ্য কণ্ঠে প্রতিবাদী আওয়াজ তুলতে চাই। এবং সরকার তথা প্রশাসনের উদ্দেশ্যে বলতে চাই আপনারা অপরাধীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করুণ এবং বিষয়গুলির সঠিক তদন্ত সাপেক্ষ বিচারের আওতায় আনুন। আমরা প্রায় অধিকাংশ সাংবাদিক সমাজ বেতনহীনভাবে দেশের সুনাগরিক হিসেবে দেশপ্রেমিকতায় সর্বদা অন্যায়ের বিপক্ষে লেখালেখি করে চলেছি।
আমরা সরকারের কাছে দাবী রাখি অবিলম্বে আমাদের সাংবাদিকদের জন্য সরকারি ভাবে বেতন বরাদ্দের ব্যবস্থা করা হোক, সেই সাথে আমাদের জান মালের নিরাপত্তার সার্বিক ব্যবস্থা করা হোক। আমরা সত্য ঘটনা সমাজের সামনে তুলে ধরতে গিয়ে যদি এভাবে দুর্নীতিবাজদের প্রতিহিংসার স্বীকার হই তাহলে। কেমন করে আমরা সমাজের দুর্নীতি অপকর্মের প্রতিচ্ছ্ববি সকলের সামনে তুলে ধরবো। আমরা সাংবাদিকরা জান মালের নিরাপত্তা চাই?

আমরা চাইনা কক্সবাজার এর প্রতিবাদী সহকর্মী সাংবাদিক ইয়াকিন এর মত জুলুমবাজ চোরাচালানী কর্তৃক জখমের স্বীকার হতে।
আমরা চাই অনতিবিলম্বে কক্সবাজারের সাংবাদিক ইয়াকিন সহ সকল নির্যাতিত সাংবাদিকদের নার্য বিচার।এমানব বন্ধনকে সমর্থন জানিয়েছেন বাাংলাদেশ মানবাধিকার ও সাাংবাদিক কল্যাণ সংস্থা, তাড়াতাড়ি অপরাধীদের গ্রেফতার পূর্বক আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক আল মামুন, মোঃ হুমায়ুন কবির, মোঃ আবু সাইদ, মোঃ লাল্টু হোসেন, শহিদুল আলম, মাসুদুর রহমান, মনিরুল ইসলাম, শাহিনুর রহমান, শাহজাহান আলি মিটন, আজহারুল ইসলাম সাদী, এস এম সোহাগ রানা, ইয়াছি আলি প্রমুখ।