প্রতিদিন দুঃস্থ মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করছেন সংগঠক সাইফুর রহমান শাকিল

আমির হামজা : লক ডাউনের দিন কয়েক পর থেকেই শুরু তাঁর মানবতার সেবা। চাকরি করেন দেশের নামকরা ইলেকট্রনিক মিডিয়া সময় টেলিভিশনে। প্রতিদিন রাতে অফিস থেকে এসেই শুরু হয়ে যায় স্ত্রীর নিপুণ হাতে রান্না করা খাবার পেকেটে ভরার প্রস্তূতি। সে থেকে রাজধানীতে অনাহারে থাকা গরীব অসহায় পথচারী ও দিনমজুরদের মাঝে অকাতরে খাবার বিলিয়ে যাচ্ছেন তিনি। প্রতিদিন তাঁর সাথে খাবার বিতরণ কাজে সহযোগিতা করছে বাবলু, উজ্জ্বল, শফিকুল, নিজাম ও হৃদয়। সাইফুর রহমান শাকিল একজন খাঁটি আলোর পথের যাত্রী।

দীর্ঘ এক মাসেরও বেশি সময় ধরে অসহায় এবং দুস্থ মানুষ‌ ও রিকশাওয়ালাদের মাঝে নিজের স্ত্রীর হাতে যত্ন করে রান্না করা খাবার বিতরণ করে আসছেন তিনি। প্রতিদিন রাতের বেলা খাবার বিতরণ করতে বের হন যেটি রমজানের মধ্যেও চলমান রয়েছে এবং বর্তমানে খাবারের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে। প্রতিদিন ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় তিনি ঘুরে ঘুরে অসহায় দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করে পরম তৃপ্তির হাসি হাসেন। তিনি প্রতিদিন ৮০থেকে ১০০ জন অসহায় মানুষকে খাবার বিলি করে আসছেন। সাইফুর রহমান শাকিল জানান, সম্পূর্ণ নিজ উদ্যোগে অসহায় দুঃস্থ মানুষদের কথা ভেবে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে খাবার বিতরণ করে আসছেন রাজধানীর বিভিন্ন অলিতে গলিতে।

প্রচারবিমুখ শাকিল আরো বলেন, করোনার এই দুঃসময়ে মানুষ আজ অসহায় ও ঘরবন্দি। অনেকের উপার্জন কমে গেছে বিশেষ করে দুস্থ অসহায় মানুষদের কষ্টের কথা ভেবে বিবেকের তাড়নায় আমি সামাজিক ও মানবিক দায়বদ্ধতা থেকে এ উদ্যোগ গ্রহণ করি। এখন পবিত্র রমজান মাস চেষ্টা করছি এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন সব সময় অসহায় ও দুস্থ মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারি এবং মানুষের মঙ্গলের জন্য আজীবন কাজ করে যেতে পারি। তিনি সামর্থবানদের‌ও বর্তমান করোনা মহামারীর এই দুঃসময়ে মানবতার সেবায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।